ক্যাটেগরিঃ ক্যাম্পাস, ফিচার পোস্ট আর্কাইভ

বিডিনিউজের সাংবাদিক শফিক। আমার হলের ছোট ভাই। মোটামুটি প্রতিদিনই দু’একবার ফোন দিয়ে আমার খোঁজ খবর নেয়। অধিকাংশ দিন রাতের খাবার এক সাথে খাই। গতকাল রাতে ছাত্রলীগের সন্ত্রাসী মহিতোষ রায় টিটু তাকে পিটিয়ে আহত করেছে। (বিস্তারিত সংবাদ: বিডিনিউজ)

13390784_1603774103268479_1242583426_n

বর্তমানে সে সাভারের এনাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। এই মহিতোষ রায় টিটুকে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের নতুন করে পরিচয় করিয়ে দেওয়া প্রয়োজন আছে বলে মনে হয় না।মহিতোষ রায় সম্পর্কে জানতে চাইলে নিচের নিউজগুলো পড়ুন।

জাবির সেই ছাত্রলীগ নেতার পক্ষে প্রশাসন!

জাবির ছাত্র হলে ছাত্রলীগ নেতার সঙ্গে ঢাবি ছাত্রীর রাত্রি যাপন

জাবিতে ছাত্রলীগের হাতে হল প্রভোস্ট লাঞ্ছিত

13393523_1603774133268476_189273583_n

গতকাল ছাত্রলীগ থেকে মহিতোষ টিটুকে সাময়িক বহিষ্কার করা হয়েছে। এজন্য ছাত্রলীগের সভাপতি জনি ভাই ও সাধারণ সম্পাদক রাজিব ভাইকে ধন্যবাদ। আমি আশাকরি বিশ্ববিদ্যালয় শাখা তো বটেই কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগ তাকে আজীবন বহিষ্কার করুক। আমরা কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের কাছে এই দাবি জানাবো। কারণ এ রকম দুই’চারটা মহিতোষ রায় টিটু ছাত্রলীগ থেকে চলে গেলে সমস্যা হবে বলে মনে হয় না। কিন্তু এ রকম একটা মহিতোষ ছাত্রলীগের সর্বনাশ করার জন্য যথেষ্ট।

Final-Pic-1040x727

বিশ্ববিদ্যালয়ের সাংবাদিক নির্যাতনের ঘটনায় বিচার করতে সকল প্রশাসনকে গড়িমসি করতে দেখেছি। এখনো জানি না এই প্রশাসন কী করবে! তবে এক বুক আশা নিয়ে উপাচার্যের কাছে যাবো বিচারের দাবিতে। যদি দেখি যে প্রশাসন গড়িমসি করছে তাহলে বুঝে নেব- এই বিশ্ববিদ্যালয়ের যাবতীয় আইনকানুন, সুযোগ সুবিধা শুধুমাত্র শিক্ষকদের জন্য সুরক্ষা দেওয়ার জন্য।

দ্রুত সুস্থ্য হয়ে উঠো শফিক। এসব ময়লা আবর্জনা সাফ করার জন্য ঝাঁটা হাতে নেওয়া লাগবে যে।