ক্যাটেগরিঃ রাজনীতি

শিরোনাম দেখে ভয় পাবেন না। ঢাকা আমার বাপের সম্পত্তি নাহলেও অনেকেই ভাবেন যে, এটা তাদের পৈতৃক সম্পত্তি। কয়েকদিন আগে দেখলাম পত্রিকায়, বিনপি মার্চে ঢাকা দখল করবে। তার উত্তরে সরকার দলিয় একজন মন্ত্রি বললেন, ঢাকা আসবেন, ঢাকা দখল করবেন আর আওয়ামীলীগ বসে বসে তামাক খাবে এটা ভাববেন না। একটা স্বাধীন গণতান্ত্রিক দেশে কি করে এমনটা হতে পারে যে, দেশের রাজধানী একটা রাজনৈতিক দল দখল করবে? আর যদি দখলও করে তবে তা থেকানর জন্য আইনশৃঙ্খল রক্ষাকারী বাহিনী তা মোকাবেলা করবে। তা নিয়ে একজন মন্ত্রী কেন মাথা ঘামাবেন।

প্রায় সময় খবরে, সংবাদপত্রে দেখি বিরোধীদলের আন্দোলন অথবা মিছিল ছত্রভঙ্গ করার জন্য পুলিশের সাথে সরকারদলিয় নেতাকর্মীরাও লাঠিসোটা হাতে নিয়ে রাজপথে নামে। বিরোধীদলের কর্মীরা মিছিল করলে তা আইনশৃঙ্খলা ভঙ্গ হয়, আর সরকারি দলের কর্মীরা করলে তাহয় পুলিশের সাহায্য। আমি জানতে চাই, পুলিশ কি তাদের কাছে কখনও সাহায্য চেয়েছে? দেশের শান্তি শৃঙ্খলা বজায় রাখার দায়িত্ব যাদের তাদের তা করতে দেয়া হোক। সরকারদলিয় কর্মীদের যে কি কাজ আমরা সাধারণ জনগন ভাল করেই জানি।

কিছুদিন আগে একবার ভুল করে টিভি চ্যানেল পালটাতে গিয়ে বিটিভি এসেছিলো। বিটিভির আটটার সংবাদের পর ৫ মিনিটের একটা প্রোগ্রাম হয়, নাম ঠিক মনে করতে পারছিনা, বোধয় “এই দিনে সে সময়”।

এই প্রগ্রামে গত সরকারের আমলে, সংবাদপত্রের পাতায় যত দুর্নীতি, অপরাধ, চাঁদাবাজি ইত্যাদি খবরগুল তুলে ধরা হয়। তবে দেশ যেভাবে চলছে, আগামীতে নিজেরাও যে সেই একি কাতারে পড়ে যাবে, সেই ব্যাপারে সরাকারের বিন্দুমাত্র মাথা ব্যথা আছে বলে আমার মনে হয় না।

আমার বাপের সম্পত্তি, আমি যা খুশী তাই করবো, আপনারা হলেন প্রজা। তাই প্রজার মতই আচরণ করুন। এটাই যেন বর্তমান সরকারের মনভাব।