ক্যাটেগরিঃ প্রশাসনিক

 

ভারত আমাদের প্রতিবেশী বৃহত রাষ্ট্র ভ্রমন, চিকিৎসা, ব্যবসা শিক্ষা সহ বিভিন্ন প্রয়োজনে আমাদের বাংলাদেশীদের ভারতে যেতে হয় তার জন্য প্রয়োজন ভারতীয় ভিসা কিন্তু বর্তমানে আমাদের বাংলাদেশীদের কাছে ভারতীয় ভিসা যেন সোনার হরিণের । তারচেয়েও বেশী দামী এদেশের অনলাইনে ভিসার এপ্লিকেশন করে সেখান থেকে সাক্ষাৎকারের তারিখ পাওয়া। আমাদের দেশে ভারতীয় ভিসা পেতে হলে অনলাইনে ভিসা আবেদন পত্র পূরণ করে তার পর ভারতীয় ভিসা সেন্টারে ভিসা আবেদন পত্র জমাদেওয়ার জন্য স্বাক্ষাতের তারিখ নিয়ে ভিসা আবেদন পত্র জমা দিতে হয় অবশ্যই নিঃসন্দেহে এটাএকটা প্রশংসনীয় উদ্যেগ কারন এ সিস্টেমের আগে হাতে লেখা ফর্ম পূরণ করে ভারতীয় দূতাবাস বা ভিসা সেন্টারের সামনে দিনের পর দিন অনিশ্চিত ভাবে দাড়িয়ে থাকার হাত থেকে আমাদের মুক্তি দিলেও দালালদের দৌরত্ব বা ভোগান্তির হাত থেকে মুক্তি দিতে পারেনি । আগে ছিল এনালগ ভোগান্তির এখন তা পরিবর্তন হয়ে ডিজিটাল ভোগান্তিতে রুপ নিয়েছে । বর্তমানে অনলাইনে পূরণ কৃত ভারতীয় ভিসাআবেদন পত্র ভিসা সেন্টারে জমাদানের স্বাক্ষাত কারের তারিখের জন্য যে চরম ভোগান্তির সৃষ্টি তা নজির বিহীন । আমাদের দেশের দালালদের সাথে ভারতীয় ভিসা সেন্টারের এক শ্রেনীর কর্মকর্তার যোগ সাজসে অনলাইনে পূরণ কৃত ভারতীয় ভিসাআবেদন পত্র ভিসা সেন্টারে জমাদানের স্বাক্ষাত কারের তারিখ কখন কিভাবে মেলবে তা আমাদের সাধারনের বোধগম্য নয় । বর্তমানে অনলাইনে পূরণ কৃত ভারতীয় ভিসা আবেদন পত্র ভিসা সেন্টারে জমাদানের স্বক্ষাত কারের তারিখের জন্য অবশ্যই আবেদনকারীকে দালালের হাতে সর্বনিন্ম দুই হাজার গুজে দেওয়া আবশ্যক অন্যথায় কোন ভাবেই আবেদন পত্র ভিসা সেন্টারে জমাদানের স্বক্ষাত কারের তারিখ জুটবে না । অতএব ভারত সরকার সহ বাংলাদেশের পররাষ্ট্র মন্ত্রনালয়ের প্রতি আমাদের সাধারন বাংলাদেশীদের অনুরোধ ভারতীয় ভিসার উক্ত সহজ পদ্ধিতটা কে দুর্নীতি মুক্ত করার জন্য যথাযথ পদক্ষেপ গ্রহন করুন ।