ক্যাটেগরিঃ আইন-শৃংখলা

আজ থেকে প্রায় ছয়মাস আগে একটি লেখা পোষ্ট করেছিলাম যার শিরোনাম ছিল “মৌলবাদের খঞ্জর, রাষ্ট্রযন্ত্রের জেল জুলুম এবং আমাদের মুক্তমত! ” আমি আমার ঐ পোষ্টে বলতে চেয়ে ছিলাম আমাদের স্বাধীন বাংলাদেশে নিজের মুক্ত মত প্রকাশ করা কত  কঠিন । যদিও আমার ঐ পোষ্টের জন্য আমাকে বিভিন্ন ভাবে হুমকি ধমকি শুনতে হয়েছে । অবশ্য ঐ হুমকি ধমকি আমি ছেলে খেলার ছলেই নিয়েছি । জানি আমি কোন লেখক নই বা কোন নেতা ও নই আমি একজন সাধারন বাংলাদেশী একজন নিন্মমানের ব্লগার তাই ঐ ধরনের হুমকি ধমকি আমার সথে মশকরা ছাড়া আর কিছুই নয় ।

যাক সে কথা! আমার ঐ পোষ্টে আমি প্রকাশ করতে চেয়েছিলাম যে আমাদের দেশের ধর্মীয় উগ্রবাদীরা আমাদের স্বাধীন মুক্ত মত প্রকাশের জন্য কতটুকু বাধা অর্থাৎ আমাদের মুক্ত মত প্রকাশের ক্ষেত্রে আমাদের দেশের অন্ধ ধর্মীয় উগ্রবাদ তথা ধর্মীয় মৌলবাদীরা কতটুকু বিপদ জনক তার সাথে আমাদের সরকার তথা রাষ্ট্র ব্যবস্হ্যা ই বা আমাদের স্বাধীন মুক্ত মত প্রকাশের জন্য কতটুকু বাধা ! যারা আমার ঔ পোষ্ট পড়েছে তারা হয়তো কিছুটা উপলব্ধি করতে পেরেছে । আমি আমার ঐ পোষ্টে আমাদের স্বাধীন মুক্ত মত প্রকাশের ক্ষেত্রে অন্ধ ধর্মীয় উগ্রবাদ তথা ধর্মীয় মৌলবাদীরা কতটুকু বিপদ জনক তা ইতোমধ্যে প্রমান হয়েছে অনেক বার তার পরেও নতুন করে প্রমান হলো মাত্র এক মাসের ব্যবধানে দুই জন ব্লগার তথা দুই জন মুক্তচিন্তার বাহককে হত্যার মধ্য দিয়ে । আমি আমার আজকের লেখায় ধর্মীয় উগ্রবাদীদের তথা ধর্মীয় মৌলবাদীদের অন্ধ বলে আখ্যায়িত করেছি ।

কারণ অনেক আছে অনেক যুক্তি তর্কে বেরিয়ে এসেছে ধর্মীয় উগ্রবাদীরা তথা ধর্মীয় মৌলবাদীরা সব সময় চোখ থাকতে ও অন্ধই হয় । তা আর একটি নতুন প্রমান ব্লগার ওয়াশিকুর রহমান বাবু হত্যাকারীদের জবান বন্দিতে । ব্লগার ওয়াশিকুর রহমান বাবু হত্যাকান্ডের সাথে জরিত দুইজন হাতে নাতে হিজরাদের হাতে ধরা পরার পর তাদেরকে পুলিশে সোপর্দ করা হয় পুলিশের কাছে জবানবন্দিতে খুনিরা বলেছে ব্লগে ওয়াশিকুর রহমান বাবু কী লিখতো তা তারা কখনোই পড়েনি শুধু বড় হুজুরের হুকুমে তারা ঈমানি দয়িত্ব পালন করেছে । তাই এটাই সবচেয়ে বড় চিন্তার বিষয় ও প্রশ্ন যে তারা কতটুকু মস্তিক বিহীন অন্ধ যে শুধু মাত্র তথা কথিত বড় হুজুরের হুকুমে না জেনে না বুঝে এক জন মানুষকে তারা হত্যা করলো। শুধু মাত্র ঈমানী দায়িত্ব পালনের জন্য । ঈমানী দায়িত্ব কি তাদের কাছে শুধুই মানুষ খুন করা?

আজ যারা ঈমানি দায়িত্ব পালনের জন্য মুক্ত চিন্তার মানুষের খুন করছে তারা ও কিন্তু তাদের মতবাদ ব্লগ, ফেইসবুক, টুইটার সহ বিভিন্ন সামাজিক মাধ্যমে বা পত্র পত্রিকা বা বইয়ে প্রকাশ করছে কিন্তু মুক্ত চিন্তার মানুষগুলো তো কখনোই তাদেরকে চাপাতি দিয়ে আঘাত করেনি । তারা তাদের প্রতি উত্তর করেছে তাদের লেখনির মাধ্যমে তাদের মুক্ত মত প্রকাশের মাধ্যমে । আমাদের সরকার ও রাষ্ট্র যেন কোন ভাবেই আমাদের দেশের মুক্তমত প্রকাশের মানুষদের কে সমর্থন করতে পারছে না বার বার তারা ক্ষমতা টিকিয়ে রাখার জন্য বা ক্ষমতায় যাওয়ার জন্য ধর্মীয় উগ্রবাদীদের কাছে মাথা নত করে আসছে । আর তাই ধর্মীয় উগ্রবাদীদের হাতে মুক্তচিন্তার মানুষদের খুনের আজো কোন সুষ্ঠ সুরাহা হয়নি বরং বার বার ধর্মীয় উগ্রবাদীরা সরকার বা রাষ্ট্রের কাছ থেকে কোন না কোন ভাবে পুরষ্কৃত হয়েছে । বরং সরকার বিভিন্ন আইন করে আমাদের মুক্ত মত প্রকাশের পথকে সংকুচিত করেছে যা আমাদের স্বাধীন গনতান্ত্রিক বাংলাদেশের জন্য মোট ও সুখ কর নয় । তাই এখনই সময় আমাদের প্রিয় মাতৃভুমি বাংলাদেশকে ধর্মীয় মৌলবাদের কালো থাবা থেকে মুক্ত করি নয়তো আমরা অচিরেই অন্ধকারের কালো গহ্ববরে হাড়িয়ে যাবো সে দিন আর আমাদের অস্তিত্ব খুজে পাওয়া সম্ভব হবে না ।