ক্যাটেগরিঃ গণমাধ্যম

 

সাংবাদিকতা একটা মহান পেশা সাংবাদিকরা সমাজের অতন্ত্র প্রহরী। আমাদের দেশে সাংবাদিক নামধারি কিছু ব্যক্তি নিজেদের স্বার্থ হাসিলে নানা অপরাধে জড়িয়ে পড়ছে যা এ মহান পেশায় কালিমা লেপনের ই চেষ্টা মাত্র। সম্প্রতি ময়মনসিংহ শহরের মাসকান্দা এলাকার একটি বাড়ি থেকে দুই টি বিদেশি পিস্তল ও আগ্নেয়াস্ত্র তৈরির বিপুল সরঞ্জামসহ দুই সাংবাদিককে আটক করে পুলিশ। আটক শেখ মেহেদী হাসান ওরফে নাদিম ময়মনসিংহের সংবাদপত্র দৈনিক জাহানের ব্যবস্থাপনা সম্পাদক এবং মো. রাসেল মিয়া একই পত্রিকায় সাংবাদিক। আগে হয়তো রিপোর্ট প্রকাশের হুমকি বা রিপোর্ট প্রকাশ করে কিছু সাংবাদিকের বিরুদ্ধে চাঁদাবাজির অভিযোগ ছিল কিন্তু সরাসরি অপরাধ কর্মকান্ডের সাথে জড়িত হওয়ার কথা তেমন শোনা যেতনা।

প্রায় একযুগ আগে ঢাকার একটি প্রভাবশালী দৈনিকের এক সাংবাদিক আন্ডার ওর্য়াল্ডের সঙ্গে জড়িয়ে পড়ার ঘটনা ব্যপক ভাবে সমালোচিত হয়েছিল । পরে সেই সাংবাদিক চাকুরি হারিয়ে মামলা রোষানলে পরে দেশ ছাড়া হয়েছেন। এমএলএম ব্যবসার নামে প্রতারণা করে সাধারণ মানুষের টাকা আত্মসাতের অভিযোগে সস্ত্রীক কারাগারে গিয়েছিলেন এক বেসরকারি টিভি চ্যানেলের সাংবাদিক । তিনি ও নাকি এখন দেশ ছাড়া । গত ১৪ই ডিসেম্বর ২০১৫ কক্সবাজারে ৪০ হাজার ইয়াবাসহ আটক হন দৈনিক কক্সবাজার বার্তার ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক ও বেসরকারি টেলিভিশন গাজী টিভির কক্সবাজার প্রতিনিধি মোহাম্মদ সেলিম ও তার স্ত্রী মুন্নি আক্তার ৷

স্বাভাবিক ভাবে প্রশ্ন আসে কেন এবং কারা কলংকিত হচ্ছে এই মহান পেশা ? সাংবাদিকরা আমাদের সমাজের ই একটি অংশ চাইলেই সকল সংবাদিকের ভিতর থেকে লোভ লালসা মুছে ফেলা যাবে না । আমাদের দেশে সংবাদমাধ্যমের মালিক বা সম্পাদক কারা হতে পারবেন সেই বিষয়টি এখনও নির্দিষ্ট নয় টাকা থাকলে ই যে কেউ সংবাদমাধ্যমের মালিক বা সম্পাদক বনেযেতে পারেন । আমাদের দেশের কিছু কিছু সংবাদমাধ্যমের মালিকদের মূল উদ্দেশ্যই হলো নিজের বৈধ-অবৈধ ব্যবসা রক্ষার ঢাল হিসেবে সংবাদমাধ্যকে ব্যবহার করা । সেই সাথে ঐ সকল সংবাদমাধ্যমে নিয়োগ পাওয়া কিছু সাংবাদিক তাদের মালিকদের অনুগত্য হিসেবে কাজ করে যার ফলশ্রুতিতে ই কলংকিত হচ্ছে এই মহান পেশা ।

সংবাদমাধ্যম ও সাংবাদিকদের এমন চরিত্র শুধু বাংলাদেশে ই নয় বিশ্বের নানা দেশে এ ধরনের চিত্র বিদ্যমান । ২০১৪ সালের জানুয়ারিতে আমেরিকার প্রভাবশালী অনলাইন মাধ্যম হাফিংটন পোস্ট এ সাংবাদিক অ্যাডম বেমা এক প্রতিবদেনে আফ্রিকার সাংবাদিকদের দুর্নীতির চিত্র ধরেন । প্রতিবেদনে অ্যাডম বলেন আফ্রিকার বিভিন্ন দেশে অনেক সংবাদিক ই অর্থের বিনিময় সংবাদ পরিবেশন করে থাকে । ২০১০ সালের সেপ্টেম্বরে সেন্টার ফর মিডিয়া অ্যাসিসট্যান্স আন্তর্জাতিক খ্যাতি সম্পন্ন লেখক এবং গবেষক বিল রিসটো র এক গবেষনা প্রতিবেদন প্রকাশ করে , ঐ প্রতিবেদনে প্রকাশ করা হয় কিভাবে বিশ্বের বিভিন্ন দেশে কিছু সাংবাদিক আর্থিক চুক্তি, মিথ্যা অভিযোগ, প্রমোশনাল নিউজ, রাজনীতিবিদদের কাভারেজ, নির্বাচনের কাভারেজ দিয়ে অর্থ আদায় করেন। আর এর সঙ্গে প্রতিষ্ঠান হিসেবে সংবাদমাধ্যম ও যে জড়িত তাও প্রকাশ হ্য় । আমাদের দেশে অনেক সময় অসৎ সাংবাদিকের কারনে চাপের মূখে থাকতে হয় সৎ সাংবাদিকদের এমনকি সংবাদমাধ্যমের কিছু মালিকদের মনখুশি না করতে পেরে চাকুরি হারান অনেক সৎ সাংবাদিক । তার পর ও এটাই বস্তবসত্য যে সাংবাদিকতার এই মহান পেশায় সততার ভিড়ে অসৎ এর সংখ্যা খুবই নগন্য । সাংবাদিকতার এই মাহন পেশাকে কালিমা মূক্ত হলে অবশ্যই খেয়াল রাখতে হবে যে নাদিম বা সেলিমের মত সাংবাদিক নামধারীরা যেন কোন ভাবে ই এই পেশায় আশ্রয় নিতে না পারে ।