ক্যাটেগরিঃ নাগরিক আলাপ

 

আমার ফেসবুক বন্ধুদের অনেকে চ্যাট করে আমাকে প্রশ্ন করছেন, কেন বর্তমান রাজনৈতিক চালচিত্র নিয়ে ছড়া কবিতা লিখছি না ? আমি বললাম সবাই “লাইলা ইল্লা আন্তা ছুবহানা ইন্নি কুনতু মিনাজ যলিমিন” পড়ুন। একদা এক গৃহস্থের বাড়িতে ডাকাত পড়ে। ডাকাত দেখে বাড়ির সকলে দিগ্বিদিক ছুটা ছুটি করতে থাকে কিন্তু ডাকাতেরা ততক্ষণে গৃহ কর্তাকে ধরে তার পরনে লুঙ্গি খুলে পিছন মোড়া তার লুঙ্গি দিয়ে হাত দুটো বেঁধে ফেলে। ততক্ষণে তার এক যুবক ছেলে খাটিয়ার নিচে লুকিয়ে বাবার পরিণতি দেখতে থাকে। ডাকাতদল বাড়ির সমস্ত মালামাল তছনছ করে মূল্যবান সামগ্রী নিয়ে চলে যায়। ডাকাতদল গৃহ
ত্যাগের পর সকল প্রতিবেশীরা ছুটে এসে গৃহ কর্তাকে দিগম্বর অবস্থায় উদ্ধার করে। গৃহ কর্তার যুবক ছেলেও তখন খাটিয়ার নিচ থেকে বেরিয়ে এসে বলল, মানির মান আল্লাহ রাখেন, অল্পের জন্য রক্ষা, নইলে আজ বাবার এমন পরিণতি আমারও হত।

জাতি আমরা আজ ইলিয়াস আলীর দিগম্বরতা দেখছি এবং নিজেকে নিরাপদ ভেবে শুকরিয়া আদায় করছি কিন্তু এক এক করে যখন পুরো জাতি দিগম্বর হবে তখন লুকিয়ে দেখার মত কেউ থাকবে না, টিভি’র পর্দায় তখন শুধু বিশ্ববাসী চেয়ে দেখবে।

*আমার এ লেখাটিতে যদি কাহারও বিবেক জাগ্রত হয় এবং বোধোদয় হয় তবে যে যেভাবে পারেন বাংলার আকাশে বাতাসে ছড়িয়ে দিন উহার মর্মব্যথা আর আমি রইলাম প্রস্তুতি নিয়ে যমদূতের অপেক্ষায়।*

ধন্যবাদ
২১.০৪.২০১২