ক্যাটেগরিঃ অর্থনীতি-বাণিজ্য

বর্তমান শেয়ার বাজার এর ভয়াবহ পরিস্থিতি ও নিঃস্ব বিনিয়োগ কারীদের অনেক আন্দোলনের পরে প্রধানমন্ত্রীর সরাসরি হস্তক্ষেপ চাওয়া হয় এবং তারই প্রেক্ষিতে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী গত ১৬ তারিখ সন্ধ্যায় তার বাস ভবনে এক জরুরী সভা ডাকে। ঐ দিনেই সভার আগেই সূচক ৩৩৪ পয়েন্ট বাড়ে এবং সভাতে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী বলেন শেয়ার বাজার ঠিক করতে যা যা দরকার তারই ব্যবস্থা নেওয়া হবে। তারই ধারাবাহিকতাই পরপর চার-পাচ দিন একটানা বাড়ে। সাধারণ বিনিয়োগ কারীরা কিছু টা হলেও আশস্ত হয়েছিল যে কিছু হলেও ক্ষতির পরিমাণ কমে আসবে। কিন্তু গত বুধবার থেকে আবার সেই পুনরাবৃত্তি। সাধারণ বিনিয়োগকারীদের শেষ ভরসা ছিল প্রধানমন্ত্রী। কিন্তু বর্তমান এই পরিস্থিতিতে সাধারণ বিনিয়োগকারীরা কোথায় গিয়ে দাঁড়াবে, কার কাছে এর সমাধান চাইবে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী কি বলতে পারেন? আপনার কথার উপর ভিত্তি করে বিনিয়োগকারীরা নতুন করে বিনিয়োগ শুরু করে ছিল কিন্তু এতে আর বেশী ক্ষতিগ্রস্থ হল। এটা কি শুধু কয়েক দিনের জন্য আই ওয়াশ ছিল ? শেষ পর্যন্ত শেয়ার মার্কেট এর কতিপয় অসাধু পরাশক্তি ব্যক্তির কাছে প্রধানমন্ত্রীও হেরে গেল? আপনার আইন,শাসনে গোটা দেশ চলতে পারলে একটা সেক্টর এর দুর্নীতি আপনি দমন করতে পারেন না? এত দিন যাই হয়েছে অন্তত আপনার হস্তক্ষেপের পর শেয়ার মার্কেট আবার স্বাভাবিক অবস্থায় ফিরে যাবে এটাই সকলের প্রত্যাশা। এতে যদি আপনার দলের লোকও জড়িত থাকে তাতে কঠোর ব্যবস্থা নিয়ে শেয়ার মার্কেট স্বাভাবিক করবেন এটাই সকলের প্রত্যাশা।