ক্যাটেগরিঃ রাজনীতি

সারা বাংলাদেশে প্রতিবাদের ঝড়, প্রত্যাশার ঝড়। “কসাই কাদের” এর গুরু পাপের লঘু শাস্তির বিরুদ্ধে প্রতিবাদ, আর সুবিচারের মাধ্যমে উপযুক্ত শাস্তির প্রত্যাশা। বাংলাদেশ আজ কোটি মুক্তিযোদ্ধা পেয়েছে নতুন করে। নব প্রজন্মের মুক্তিযোদ্ধা। এদের গর্জন প্রতিধ্বনিত হচ্ছে সর্বত্র। কান পেতে এ গর্জন শুনতে হয়না। শুধুমাত্র কান নয়, পঞ্চইন্দ্রিয় ভোঁতা থাকলেও এ গর্জন অনুভব করতে একটুও কষ্ট হয়না।

দেশের দু’দুবারের নির্বাচিত প্রধানমন্ত্রী, স্বাধীনতার সাকুল্য বয়সের এক চতুর্থাংশ সময়ের এ জাতির গর্বিত অভিভাবক আপনি। দেশের অন্তত দশ বছরের ভাগ্যের সরাসরি নিয়ন্ত্রক আপনি। ভবিষ্যতেও হয়তো আপনার নিয়ন্ত্রণে যাবে এই অভাগা দেশটি। খেতাব প্রাপ্ত একজন বীর মুক্তিযোদ্ধার স্ত্রী আপনি। একজন দেশপ্রেমিক শহীদ(!) রাষ্ট্রপতির সহধর্মিণী হিসেবে রাষ্ট্রের তৎকালীন একজন দায়িত্বশীল ব্যক্তিত্বও আপনি। এতএত গুরুত্বপূর্ণ অবস্থান আপনার। দেশের আজকের এরকম গুরুত্বপূর্ণ ক্ষণে জাতি আপনার কাছে একটি দিকনির্দেশনা আশা করে। দিকনির্দেশনা না হোক অন্তত একটা অভিব্যাক্তি আসবে আপনার কাছ থেকে, তা একটি অপরিহার্য চাওয়া।

আপনার দলের মুখপাত্র তরিকুল ইসলাম গতকাল বললেন “কসাই কাদের” এর মামলায় রায়ের ব্যাপারটি আপনারা পর্যবেক্ষণ করছেন। পর্যবেক্ষণে আর কি বেরোবে ম্যাডাম? রায় বর্ধিত হয়ে ফাঁসি হবে, নাকি ঘৃণ্য এ রাজাকার বেকসুর খালাস পাবে?

আপনাকে যারা ক্ষমতালোভী, নির্লজ্জ বলে গালাগাল দেয়, তাঁদের এ মূল্যায়নের পক্ষে আপনার কর্মকাণ্ড সত্যতা দিয়েছে। আপনি নিজেই বারবার প্রমান করেছেন ম্যাডাম, আপনি ক্ষমতা ছাড়া কিছুই বোঝেন না। এই ক্ষমতা লিপ্সায় স্বাধীনতা বিরোধীদের আপনি মন্ত্রী বানিয়েছেন, যেমন বানিয়েছিলেন আপনার মুক্তিযোদ্ধা স্বামী। বিদেশী প্রভুর কাছে দেশোদ্ধারের আকুতি জানিয়েছেন। দেশের স্বার্থানুকূল জিএসপি সুবিধা এবং অন্যান্য অনুদান বন্ধের আহ্বান জানিয়েছেন। দুটি নগ্ন-প্রকট সত্যই বলা হল ম্যাডাম। আরো বলা বাহুল্য হবে।

আজ আপনার সামনে একটা সুযোগ। এরকম মোক্ষম সুযোগ আর আসবেনা। সমগ্র জাতির সাথে সুর মিলিয়ে বলুন হত্যাকারী- ধর্ষক- কসাই কাদের এর উপযুক্ত বিচার আপনিও কামনা করেন।
আর যদি এই ট্রাইব্যুনালের যথার্থতা, মান ও নিরপেক্ষতা নিয়ে আপনি যা বলে আসছিলেন তাই না হয় বলুন আরেকবার এই দেশ কাঁপানো ক্ষণে।

আপনি ঘুমিয়ে নেই “দেশনেত্রী (!)”। বিন্দুমাত্র লজ্জা যদি থাকে জনগনের সামনে আপনার অবস্থান তুলে ধরুন। আর যদি ঘুমিয়েই থাকেন নিজের গায়ে একটু থুথু ছিটিয়ে জাগিয়ে দিন। দেখুন বিবেক কি বলে?