ক্যাটেগরিঃ রাজনীতি

 

আলোকিত মানুষ গড়ার কারিগর প্রিয় অধ্যাপক আব্দুল্লাহ আবু সাইয়ীদ স্যার কে নিয়ে সাংসদদের অশালীন প্রতিক্রিয়ার পর বেশ কয়েকদিন গত হল। খ্যাত অখ্যাত সব বিষয় এর মত এই প্রসঙ্গটি ক্রমশ ফিকে হয়ে আসছে। প্রতিনিয়ত নতুন নতুন ঘটনা খুব দ্রুতই গুরুত্বপূর্ণ পুরাতনগুলোকে পেছনে ফেলে দেয়।

ঘটনার অঘটনের পেছনের হোতা ইনকিলাব এর মত কয়েকটি পত্রিকা যেগুলো স্যারের ফ্যাব্রিকেটেড বক্তব্য প্রচার করে আমাদের অতি প্রতিক্রিয়াশীল জনপ্রতিনিধিদের অতি আক্রমণাত্মক আচরণ কে উস্কে দিয়ে ষোলআনা সফল হয়।

জাতীয় সংসদের বিচক্ষণ মাননীয় স্পিকার ঘটনা আরো দীর্ঘায়িত না হবার সময়োপযোগী উদ্যোগ নিয়ে উভয়পক্ষ সেই সাথে সচেতন নাগরিকদের অধিকতর অস্বস্তিকর পরিস্থিতির হাত থেকে রক্ষা করেন। সাইয়ীদ স্যার তার অবস্থানের সঠিক ব্যাখ্যা দেন। এনিয়ে সাংসদগণ আর কোন প্রতিক্রিয়া জানাননি। আমরা বুঝে নিলাম তাঁরা ভুল বুঝতে পেরেছেন। যদিও সেরকম কোন বিবৃতি আসেনি। পরে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে স্যার বলেছিলেন “ এ ব্যাপারে কেউ দুঃখ প্রকাশ করেননি। হয়তো এরকম সংস্কৃতি গড়ে ওঠেনি। ” মাননীয় সাংসদদের উদ্দেশ্যে বলব ভুল করে দুঃখ প্রকাশ করার ন্যূনতম সৌজন্যতা দেখালে আপনাদের মানসিক উদারতার জন্য জাতি প্রশংসা ও বাহ্বায় আপনাদের ভাসিয়ে দিতে কার্পণ্য করবেনা। আসুন সৌজন্য প্রকাশ করে আমরা সুজন হই। আপনারা দুঃখ প্রকাশ না করলেও আমাদের নির্বাচিত জনপ্রতিনিধিদের ভুলের জন্য আমরা শুধুমাত্র দুঃখ প্রকাশ না করে ক্ষমা প্রার্থনা করছি।