ক্যাটেগরিঃ রাজনীতি

আইভীকে অভিনন্দন। অভিনন্দন নারায়ণগন্জবাসীদের। আবার জনগণ বুঝিয়ে দিল জনগণই সকল ক্ষমতার উৎস। সন্ত্রাস, চাঁদাবাজ, দুর্নিতিবাজ, ভূমিদস্যু, গডফাদারদের দিন শেষ। শান্তিকামী, শান্ত, নিরীহ এবং মানবতাবাদীদের বিজয়। দুর্নিতি না করে, অন্যায় না করে, সন্ত্রাসীদের লালন না করেও ক্ষমতায় আসা যায়। মানুষের হৃদয় জয় করার নামই তো বিজয়। আইভী নতুন করে দেখিয়ে দিলেন জনগণ কাকে চায়? জনগণ কী চায়? আমাদের বুঝতে হবে জনগণ সঠিক সময় সঠিক সিদ্ধান্ত দিতে ভুল করে না। নারায়নগন্জ নির্বাচনের আগে শামীম ওসমান কম কথা বলেন নি। কম ক্ষমতার বড়াই দেখাননি। এও বলেছেন- নারায়ণগন্জের এ মাথা থেকে ও মাথা পর্যন্ত ৫লাখ লোক জড়ো করতে শামীম ওসমানের ১৫মিনিটও লাগবে না। নির্বাচনের পর বললেন, সাজানো নির্বাচন। আগে জানলে আমি নির্বাচনে অংশ নিতাম না। আমার সাথে প্রতারণা করা হয়েছে। অবশ্য তাঁর শূভবুদ্ধির উদয় হয়েছেও দ্রুত। অতি অল্প সময়ের মধ্যেই তিনি নির্বাচন মেনে নিয়েছেন। বলছেন নির্বাচন সম্পূর্ণ সুষ্ঠু হয়েছে। আজ থেকে আইভী আমারও মেয়র। তিনি তার বাড়িতে ফুলের শুভেচ্ছা পাঠিয়েছেন। বলছেন আমি ফেল করেছি কিন্তু আমার ছোট বোন পাশ করেছে। আমরা একসাথে কাজ করব। আর জনগণের নেত্রী আইভী বলেছেন যা হয়েছে নির্বাচনের দিন। আজ আমরা সবাই সমান। আমি আগেও বলেছি আজও বলি জনগণই আমার শক্তি। আমি জনগণকে নিয়েই কাজ করতে চাই। অপরদিকে এটাও ভাববার বিষয় নাগন্জে আনন্দের উৎসব বইছে। বাড়িতে বাড়িতে খুশির আমেজ। এদেশে এখনও গণতন্ত্রকামী মানুষের বিজয়। বিজয় খেটে খাওয়া মানুষের। হত দরিদ্ররা আইভীকে বেছে নিয়েছে। তারা বলছে আমাদের আইভী আপা আমাদের সাথে দীর্ঘদিন ছিল আছে এবং থাকবে। অন্যদিকে বিভিন্ন রাজনৈতিক ব্যক্তি বর্গ বলছেন এ জয় জনগণের। এ জয় খেটে খাওয়া মানুষের। আমাদের আলোচনার বিষয় এর কোনটাই নয়। আমরা চাই দেশের মানূষ ভাল থাক। ভাল থাক আইন শৃংখলা। আইনের শাসন কায়েম হলে দেশ এগিয়ে যায়। এখন দেখার বিষয় আমরা কী করতে পারি। জনগণকে কতটুকু দিতে পারি। জনগণ বাস্তবতা মেনে নিতে ভুল করে না। তারা যতই চুপ থাকুক না কেন সময়কালে সঠিক কাজটা সঠিকভাবে করে। আমাদের নেতাগণ যদি এসব বুঝতে ভুল করেন তবে বড় ভুল করবেন। সময় হলে আর এর প্রতিকার হবে না। সরকার যেমন ক্ষমতায় এলে ভুলে যায় অতীতের কথা তেমনি নেতা নেত্রীগণও ভুলে যান প্রতিশ্রুতি। আইভী আগেই বলেছেন আমি জনগণকে এমন স্বপ্ন দেখাই না যা আমি বাস্তবায়ন করতে পারব না। আমি বলব না আমি ক্ষমতায় গেলে নাগন্জকে সিংগাপুর বানিয়ে ফেলব। আমার যা সম্ভব আমি তার বাইরে কোন প্রতিশ্রুতি দিব না। জনগণকে সাথে নিয়েই কাজ করব। আমাদের কথা হল আইভী তার যে নির্বাচন প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন তারও অধিক করবেন। জনগণের আশা তার কাছে অনেক। তার বুঝতে হবে জনগণ কেন শামীম ওসমানকে প্রত্যাখ্যান করল। কেন তার কথায় গা ভাসাল না। তিনি তো কম প্রতিশ্রুতি দেননি। সুতরাং আমাদের দাবী আইভী বুঝবেন। কেননা তিনি দীর্ঘদিন রাজনীতি করেছেন। করেছেন জনগণের সেবা। তাকে পাশে রাখার জন্যই জনগণ নতুন করে জানিয়ে দিল আমাদের তোমাকে প্রয়োজন। তোমার সহযোগীতা পেলে এই দেশ এই নারায়ণগন্জ জেগে উঠবে। আলোকিত হবে নতুন সূর্যের আলোয়। মানুষ ফিরে পাবে সঠিক নেতৃত্ব।