ক্যাটেগরিঃ খেলাধূলা

 

সাকিব। সাকিব আল হাসান। টাইগারদের সাবেক অধিনায়ক। হয়েছেন সিরিজ সেরা। দুই ম্যাচের তিন ইনিংসে ৫৬ গড়ে মোট ১৭৮ রান আর ২২.৯০ গড়ে ১০টি উইকেট নিয়েছেন তিনি। ৫৮তম ওভারে ২০০ রান অতিক্রম করে বাংলাদেশ। ওই ওভারের পঞ্চম বলে বিশুর বলেই বাউন্ডারি হাঁকিয়ে ২০০ পূর্ণ করেন সাকিব আল হাসান। ৬৫ বলে ৫০ করার পর আর মাত্র পাঁচটি বল খেললেন সাকিব। যোগ করলেন আরো পাঁচ রান। আউট হন ৫৫ রানে। স্যামির বলে চন্দরপলের হাতে ক্যাচ দেয়ার আগে চার হাঁকান সাতটি। আর ৭২তম ওভারের দ্বিতীয় বলে বিশুর বলে বোল্ড হয়ে যান মুশফিক। তার সংগ্রহ ছিল ১০৭ বলে নয়টি চারে ৬৯ রান করেন তিনি। তখন দলের সংগ্রহ দাঁড়ায় ৬ উইকেটে ২৬৪ রান। এরপর আর মাত্র ১৪ রান যোগ করেন রুবেল, নাসির, নাঈমরা। বৃষ্টি বিঘ্নিত প্রথম ম্যাচ ড্র হওয়ায় মিরপুর শেরে বাংলা স্টেডিয়ামের এ ম্যাচটিই ছিল সিরিজ নির্ধারণী। জিতে ১-০ ম্যাচে সিরিজও নিজেদের করে নিল সফরকারীরা। একমাত্র টি২০-তে জিতেছিল বাংলাদেশ। আর ওয়ান ডে সিরিজেও ওয়েস্ট ইন্ডিজ জিতেছিল ২-১এ। তবুও বিজয় এসেছে আমাদের। আমাদের দেশের। সাকিব প্রমাণ করলেন দল হারলেও কিছু করা সম্ভব। সম্ভব দেশের জন্য কিছু বয়ে আনা। তিনি আমাদের তরুণ প্রজন্মের মডেল। আমাদের ক্রিকেট এগিয়ে যাক। এগিয়ে যাক আমাদের দেশ। আমাদের ক্রিকেট পাগল তরুণ।