ক্যাটেগরিঃ নাগরিক আলাপ

এশিয়া কাপ খেলার মাঝে যখন প্রধান মন্ত্রী হাসিনা আর জাতীয় পার্টির নেতা এরশাদকে পাশাপাশি বসে খেলা দেখতে দেখলাম, কেন জানি মনে হল বিরোধীদলীয় নেত্রী খালেদা জিয়ারও খেলা দেখতে আশা উচিত ছিল। একটু পর সে আশাও পূর্ণ হতে দেখলাম। জয় পাইনি জানি, কিন্তু চিরশত্রুরা, যারা দেশটাকে দুই-তিন ভাগে ভাগ করে নিজেদের পৈতৃক সম্পদ করে নিয়েছে, কিছুক্ষণের জন্য হলেও তাদের একই কাতারে দেখতে খুব ভাল লাগছিল। কেবলই মনে হয়েছিল আজ যেমন ওনারা নিজেদের দন্দ্ব ভুলে আমাদের জয় এর জন্য প্রার্থনা করছেন, এমনিভাবে যদি ওনারা বাংলাদেশকে এগিয়ে নিয়ে যাবার জন্য এক সাথে কাজ করতেন, তাহলে আমাদের মত সুখী কে আর হতো!!!

মাত্র দুই রান এর অসাধারণ পরাজয় এ কষ্ট পেয়েছি সবাই, চোখের পানি ফেলেছি আর সান্তনা দিয়েছি একে অপরকে। ভেবে দেখিনি কে আওয়ামি আর কে বিএনপি। আমরা কী পারি না কালকের মত রাজনৈতিক রেষারেষি ভুলে সবাই এক হতে? সবাই মিলে সুন্দর একটা জয় এর স্বপ্ন দেখতে? হাসিনা, খালেদা আর এরশাদ কে বলছি, আপনারা তো নিজ চোখেই দেখলেন দেশ এর জন্য আমরা এক হতে পারি, পেরিছিলাম বায়ান্ন তে, একাত্তর এ, নব্বই তে, গতকালকে, পেরেছি যখনই দরকার হয়েছে। আর আমরা তো আসলে একসাথেই সবাই মিলে দেশ এর জন্য কাজ করতেই চাই । তাহলে কেন আমাদের মাঝে আপনারা ভেদাভেদ সৃষ্টি করছেন? কেন? লক্ষ্যতো আমাদের একটাই, তাই না? জয়। তাহলে সবাই মিলে ক্রিকেট টীম এর মত দেশ এর জন্য একসাথে কী কাজ করতে পারি না? আমদেরকে কী সে সুযোগ আপনারা দিতে পারেন না?