ক্যাটেগরিঃ আইন-শৃংখলা

 
images

আত্নরক্ষার্থে দু’টি পরামর্শ এ রকম হতে পারেঃ

  • প্রথমেই বৈরী আচরণে যাবেন না। পরিচয়টি সত্য দিন কিন্তু গল্পটি মিথ্যা বলুন। প্রথম চেষ্টা হিসেবে জানিয়ে দিন আপনি একজন এইডস আক্রান্ত নারী।
  • যদি বুঝতে পারেন সে আপনার কোন কথাই গ্রাহ্য করবে না এবং শেষ পর্যন্ত আপনার উপর চড়াও হবে, তবে শেষ চেষ্টাটি করুন। তার ঠিক মাঝখানে গোপনাঙ্গটায় পা দিয়ে সজোরে আঘাত করুন। আঘাতটি করুন সর্বশক্তি প্রয়োগ করে। আপনার আঘাতটি যদি ‘লক্ষ্য’ভেদ করতে পারে, তাহলে নিশ্চিত থাকতে পারেন, প্রাণীটি প্রাণ না হারাক, অন্তত জ্ঞান হারাবে।

পরামর্শ দু’টি ভালো, কিন্তু এগুলো অনুসরণ করতে গেলে আক্রান্ত নারীর ভালোর চেয়ে মন্দ হবার সম্ভাবনাই বেশি। জাগতিক বিধানগুলো এ বিষয়ে নারীকে সার্বক্ষণিক সুরক্ষা দেবার মত মজবুত নয়, বরঞ্চ অরক্ষিত রাখার ব্যাপারে যত্নবান। লক্ষণীয়, বনে ও অরণ্যে যা ঘটে, লোকালয়ে হুবহু তাই ঘটে। বনের পশুটা যেভাবে সুখ করে, নগরীর মানুষটাও সেভাবেই সুখ করে। বনের ভিতরে হত্যা এবং নগ্নতা প্রচলিত; বনের বাহিরেও হত্যা এবং নগ্নতা ‘একইভাবে’  প্রচলিত (অধিকতর সঠিক করে বললে বলতে হবে ‘ক্ষেত্র বিশেষে আরো নারকীয়ভাবে’ প্রচলিত)।

৫-জানুয়ারি-২০১৩, ঢাকা

[বিয়োজন ও পরিমার্জনঃ  ১৪-জুন -২০১৪]