ক্যাটেগরিঃ গণমাধ্যম

 

aaeaaqaaaaaaaaocaaaajddizthmzjg3lta3m2ytndg2ys1iotriltllmtzkzdfimge0yg-1

সিলেটে মনোপলি বিজনেস কে বা কোন কোম্পানি করছে বিসিএস পরীক্ষায় আসলেও উত্তর ঠিক আসবে এসসিএস। (SCS) সিলেট ক্যাবল সিস্টেম প্রাইভেট লিমিটেড একছত্র আধিপত্য সিলেট পৌর-এলাকা ছাড়িয়ে উপজেলাসহ সিলেট বিভাগের কয়েকটি জেলা পর্যায়েও। এই ব্যবসায়ীরা দু’ধরণের। এক ধরণ হলো ডাইরেক্টর অন্য দিকে আরেক ধরণের ফিড লাইন মালিক পক্ষ। ফিড লাইন মোলিক এবং ডাইরেক্টরদের নিজস্ব এরিয়া নির্ধারিত করা আছে (সেটেলম্যন্ট অফিসের মত)। ফিড লাইন মালিক পক্ষ এক প্রকারের প্রজা বলা চলে ! ফিড লাইন মালিক পক্ষ প্রতি মাসে গ্রাহক সংযোগ লাইন এর উপর ডাইরেক্টরদের নির্দিষ্ট পরিমানের টাকা জমা দিতে হয়। ফিড লাইন মালিক পক্ষ কয়েক মাসের টাকা আটকানো মাত্র সয়ংক্রিয় ভাবে উক্ত ফিড লাইন মালিক পক্ষের এলাকার সিগন্যাল বন্ধ হয়ে যায়। ফিড লাইন মালিক পক্ষ এলাকা বা ব্যবসা বিক্রি করতে চাইলে অন্য SCS-এর তালিকাভূক্ত ক্যাবল ব্যবসায়ীর কাছে বিক্রি করতে হয় বলে জেন্টলম্যান এগ্রিমেন্ট রয়েছে !

সিলেটে (পিডিবি) পাওয়ার ডেপলাপমেন্ট বোর্ড দেখে-শুনে কিছুই করার নেই। আইন যেন তারাই তৈরী করছে SCS-এর জন্য। সমস্ত সিলেট জুড়ে ইলেকট্রিকের খুটি ব্যবহার করে ক্যাবল লাইন সংযোগ ও বিদ্যুৎ ব্যবহার করে যাচ্ছে। একই সাথে পৌরসভার ও একই অবস্থা, দেখে-শুনে কিছুই করার নেই। বিভাগীয় সদর দপ্তর থেকে শুরু করে পৌরসভা, পিডিবি, প্রশাসনের উচ্চ পর্যয় কর্মকর্তা থেকে পুলিশ ফাঁড়ি পর্যন্ত ফ্রি ডিস ক্যাবল দেখার বিপরিতে সবাই নিশ্চুপ!

সিলেট কেন্দ্রীয় শহীদমিনারের সামনে দিয়েও ঝুলিয়ে রয়েছে SCS-এর ক্যাবল। রাজনৈতিক নেতা, জেলা প্রশাসকের কার্যালয়, এসএমপি, এসপি অফিস সব জায়গাতেই ফ্রী ক্যাবল সংযোগ দেয়া আছে। ছলছে বছরের পর বছর। কোন উর্ধতন প্রশাসনিক কর্মকর্তা বদলি বা নতুন পোস্টিং পেয়ে সিলেটে আসলে সেই গতানুগতিক ধারা চলতেই থাকে। এন্টিকরাপশন, র‌্যাব, ভেট, ইকামটেস্ক, তথ্য অধিদপ্তর কারো যেন কিছু করার নেই !! SCS-এর ক্যাবল সিস্টেম নিয়ে এসেছে সেটটপ বক্স, বায়োমেট্রিক পদ্ধতির মত ধিরে ধিরে চলছে গ্রাহককে বাধ্য করা। সেটটপ বক্স এর মাধ্যমে সর্বোচ্চ ১৫৭টি চ্যানেল দেখা যায় মাসিক (৫০০/-) পাঁচ শত টাকার বিনিময়ে। এভাবে পর্যায় ক্রমে (৪০০/-) চারশত টাকার বিনিময়ে আরো কম চ্যানেল। (৩০০/-) তিনশত টাকার বিনিময়ে আরো কম চ্যানেল বা সেটটপ বক্স ছাড়া সংযোগ। প্রথমে সংযোগ ফিস ২ হাজার টাকা থেকে ২ শত টাকা পর্যন্ত তারপর আছে সেটটপ বক্স সাড়ে ৩ হাজার টাকা হতে আড়াই হাজার টাকা পর্যন্ত; এর সবটাই অফেরতযোগ্য টাকা। বাংলাদেশের ও সিলেটের অধিকাংশ মানুষই ভারত বিরোধী। সেটটপ বক্স পদ্ধতি সম্পূর্ণ ভাবে ভারতীয়। যদিও সেটটপ বক্স ৪ থেকে ৫ কোটি টাকার বিনিময়ে চিন থেকে তৈরী করে আমদানি করা হয়েছে। সেটা নষ্ট হলে ওয়ার‌্যান্টি পাওয়া যায় ১বছর পরবর্তিতে আর কোন কিছুই করার থাকেনা নতুন ভাবে আবার নিতে হয় সাধারণ গ্রাহকদের; সে ক্ষেত্রে প্রশাসনিক ও দাপ্তরিক ভাবে ভিন্নতা দেখা যায়।

ভিন্নতা দেখা যায়, বিভিন্ন দলের উচ্চপদস্ত রাজনৈতিক নেতা ও বিশেষ করে সরকারদলীয় রাজনৈতিক উচ্চ পর্যায়ের নেতাদের ক্ষেত্রেও। টাটা স্কাই, এয়ারটেল, ডিসটিভি ইত্যাদি ভারতীয় প্রাইভেট কম্পানির রিসিভার ব্যবহার করে SCS মিডিয়া কনর্ভাটারের মাধ্যমে একই সাথে একটি চ্যানেল সমস্ত সিলেটবাসী দেখতে পাচ্ছে। যা ভারতীয় প্রাইভেট কম্পানির নিতিবাচক প্রভাব ফেলছে। ভারতীয় প্রাইভেট কম্পানি বাংলাদেশে শুল্কদিয়ে তাদের পণ্য এদেশে বাজার জাত করছে। অন্যদিকে গ্লোবালাইজেশন এর মাধ্যমে বাংলাদেশে ভারতীয় প্রাভেট কম্পানি গুলোকে ব্যবসা করার জন্য আহবান জানানো হচ্ছে। আর শুধু সিলেটে সেই মনোপলি ব্যবসার জন্য ভারতীয় প্রাইভেট কম্পানি কোন ভাবেই বাংলাদেশে ইনভেস্টম্যান্টে আসতে চাচ্ছেনা, বলে গোপন সুত্রে জানাযায়।

SCS-এ ডাইরেক্টর প্রায় ২০ জনের মত। সেখানে, সকল রাজনৈতিক মতাদর্শের লোক রয়েছেন। তাঁরা বেশ পেশি শক্তিবানও বটে। তাদের কর্মের জন্য সিলেট প্রেসক্লাব, সিলেট জেলা প্রেসক্লাব সহ বিভিন্ন গণমাধ্যমে সেই একই ভাবে সংযোগ দেয়া আছে, কিন্তু কেউ কোনো রিপোর্ট করে পার পান নাই। তারা কিছু না করলেও অনেক কিছু পরক্ষভাবে করার ক্ষমতা রাখে। কারণটা অতি সাধারণ, দেশের আইনশৃঙ্খলা বাহিনী, প্রশাসন, পিডিবি, বিটিআরসি, তথ্য অধিদপ্তর, এন্টিকরাপশন, কোর্ট ইত্যাদি জায়গাতে তাদের ক্যাবল সংযোগের মাধ্যমে সম্পর্ক সুতরাং পেটে ভাত নাজোটারও ক্ষমতা এরা রাখে।

২০১৬ সালে ১৯ সেপ্টেম্বর বিটিআরসি ঘোষনা দিয়েছে বেতারযন্ত্র নিয়ন্ত্রণে মোবাইল কোর্ট পরিচালিত হবে। সিলেট সহ সারা দেশেই বিটিআরসির খুটি ব্যবহার করছে ক্যাবল ব্যবসায়ীগণ সেই সাথে সিলেটে SCS তো আছেই। সেই মোবাইল কোর্টও কিছু করতে পারবেনা এই সিন্ডিকিটের। অদুর ভবিষ্যতে তারহীন সেটটপ বক্সের মাধ্যমে ব্যবসা পরিচালনা করবে। বেতারযন্ত্র যা কিছু আমদানি করার তা হয়ে গেছে। SCS এর জন্য যদি কিছু করেই থাকে তা হবে আই ওয়াস। প্রায় ৭টি প্রাইভেট চ্যানেল SCS এর নিজস্বভাবে দেখানো হচ্ছে সিলেটবাসীকে। সরকারি জনস্বার্থে বিজ্ঞাপন (হয়ত ফ্রী চলে) বাকি প্রাইভেট বিজ্ঞাপন, স্ক্রলিং বিজ্ঞাপন, বিভিন্ন মার্কেট, রেস্তুরা, দোকান, কমিউনিটিহল, হোটেল, বিশেষ আয়োজন, পণ্যসামগ্রীর বিজ্ঞাপন সবগুলোর সময়/শব্দ/কয়টি চ্যানেল এ দেখানো হবে সেগুলোর চার্ট করা আছে কত টাকার; সে সব নিয়ে ভেট, টেক্স, তথ্য অধিদপ্তর কারো যেন কোন চিন্তা নেই। ৭ টি চ্যানেল’র কতটি অনুমোদন রয়েছে তাও সঠিক ভাবে কেউ বলতে পারে না অথবা বলতে চায়না।

বাংলাদেশের প্রাইভেট ফ্রী চ্যানেল রয়েছে প্রায় ত্রিশাধিকঃ- 1. BTV National  2. BTV World  3. Sangsad Bangladesh  4. Ekushey TV  5. SA TV   6. RTV  7. SCS Metro  8. Asian TV  9. Desh TV  10. MY TV  11. Bangla Vision  12. Boishaki TV  13. Channel I  14. Maasranga TV  15. ATN Bangla  16. NTV  17. SCS Bangla  18. Gazi TV  19. Channel 9  20. Mohona tv  21.Somoy News Tv  22. Independent TV  23. ATN News   24. Channel 24 25. Ekattor TV  26. Channel 16 27. Bijoy TV  28. Dipto TV  29. SCS Movie  30. SCS Cinema  31. SCS Live  32. SCS Music  33. SCS Promo 34.  SCS Metro.

Source: http://scs.com.bd/services.php#channelAnchor

Our location

Sylhet Cable Systems (Pvt.) Limited
Shohir Plaza (3rd Floor), Zindabazar Sylhet 3100, Bangladesh.
E-mail: sylhetcablesystems@gmail.com
Web: www.scs.com.bd

Untitled-1 copy

তাদের (SCS) নিজস্ব ওয়েব সাইড রয়েছে: http://scs.com.bd

কিন্তু বিজ্ঞাপনে ওপেন হয় না !!!untitled-1-copy

 ***

সিলেটে কেবল ব্যবসায় সরকারি নীতিমালার দাবি (পর্ব-১)